ইলেকট্রিক গাড়ি কানেক্ট হবে হাতের স্মার্টফোন দিয়েই

টেকভিশন২৪ ডেস্ক: Xiaomi Electric Car: কোম্পানি দুটি গাড়ির নাম দিয়েছে Xiaomi SU7 এবং SU7 Max। কোম্পানির মতে, এই দুটি গাড়ির বিল্ড কোয়ালিটি নিয়ে কোনও রকম চিন্তা করতে হবে না গ্রাহকদের। এছাড়াও, এতে 21000rpm সহ Xiaomi HyperEngine V6/V6s দেওয়া হয়েছে।

চিনা স্মার্টফোন নির্মাতা Xiaomi তাদের প্রথম বৈদ্যুতিক গাড়ি লঞ্চ করল। আর সেই ঘোষণা কোম্পানি নিজেই করেছে। সংস্থাটি আরও জানিয়েছে যে, তারা বিশ্বের শীর্ষ 5 অটোমেকারের তালিকায় থাকতে চায়। কোম্পানি দুটি গাড়ির নাম দিয়েছে Xiaomi SU7 এবং SU7 Max। কোম্পানির মতে, এই দুটি গাড়ির বিল্ড কোয়ালিটি নিয়ে কোনও রকম চিন্তা করতে হবে না গ্রাহকদের। এছাড়াও, এতে 21000rpm সহ Xiaomi HyperEngine V6/V6s দেওয়া হয়েছে।

এই গাড়ির সবচেয়ে ভাল ফিচার হল, এটি কোম্পানির জনপ্রিয় ফোনগুলোর অপারেটিং সিস্টেমের সঙ্গে কানেক্ট করা যাবে। এমনিতেই বছরের শেষে অটো বাজারে মন্দা দেখা যাচ্ছে। আর ঠিক সেই সময়ই বৈদ্যুতিক গাড়ি এনে তাক লাগিয়ে দিয়েছে Xiaomi। এছাড়া কোম্পানি গাড়ির দাম নিয়ে এখনই কিছু জানায়নি। কোম্পানির চিফ একজিকিউটিভ লেই জুন বলেছেন, “এটি পোর্শে এবং টেসলার (Tesla) মতো গাড়িকে টেক্কা দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। তার মানে এই গাড়িটি লাক্সারি সেগমেন্টে লঞ্চ করা হয়েছে।”

লেই আরও বলেছেন, “আমরা এই গাড়িটির জন্য 15 থেকে 20 বছর ধরে কাজ করেছি। অবশেষে সেটি বাজারে পা রাখবে। আমরা শীঘ্রই বিশ্বের শীর্ষ 5 অটোমেকার হয়ে উঠব। এটি চিনের অটোমোবাইল শিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যেতে অনেক সাহায্য করবে। অন্যান্য কোম্পানির মতো Xiaomiও ইভি বাজারে প্রবেশ করেছে। কোম্পানিটি অটোতে 10 বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে পরবর্তীকালে। আর সেই অনুযায়ীই ইভিকে বাজারে এগিয়ে যাওয়ার কথা ভাবছে প্রতিষ্ঠানটি।”

Xiaomi-এর এই প্রথম ইলেকট্রিক গাড়িতে HyperOS-ব্যবহার করা হয়েছে। গাড়িটির ইন্টেরিয়র নিয়েও অনেক কাজ করেছে কোম্পানিটি। এটি গ্যালাক্সি গ্রে কালারে বাজারে এসেছে। গাড়িতে একটি 16.1 ইঞ্চি টাচ স্ক্রিন রয়েছে। এটি সেন্ট্রাল কন্ট্রোল স্ক্রিন কীবোর্ড এক্সটেনশনকেও সাপোর্ট করে। ডি-আকৃতির স্টিয়ারিং হুইলের কারণে এটি চালাতেও কোনও সমস্যা হবে না। এছাড়া এর ডিজাইন অন্য যে কোনও লাক্সারি গাড়ির ঘুম কাড়তে পারে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন