চালু হচ্ছে মাইক্রোসফটের নিজস্ব গেম স্টোর

টেকভিশন২৪ ডেস্ক: গুগল প্লে স্টোর ও অ্যাপল অ্যাপ স্টোরের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে গেমারদের জন্য নিজস্ব গেম স্টোর নিয়ে আসছে মাইক্রোসফট। আগামী জুলাইয়ে স্টোরটি উন্মোচন করবে এই টেক জায়ান্ট। সম্প্রতি ব্লুমবার্গ টেকনোলজি সামিটে এ ঘোষণা দিয়েছে মাইক্রোসফট। খবর টেকক্রাঞ্চ ও আজকের পত্রিকা।

মাইক্রোসফটের এক্সবক্স বিভাগের প্রেসিডেন্ট সারাহ বন্ড বলেন, প্রাথমিকভাবে এক্সবক্সের মাইক্রোসফট ও ক্যান্ডি ক্রাশের মতো গেম মাইক্রোসফটের গেম স্টোরে পাওয়া যাবে। পরে গেম স্টোরটিতে অন্য প্রতিষ্ঠানের গেমও পাওয়া যাবে।

বন্ড আরও বলেন, ওয়েবসাইট থেকে এই স্টোরে প্রবেশ করা যাবে। ফলে সব দেশ থেকে ও সব ধরনের ডিভাইসে গেমগুলো খেলা যাবে। গেম স্টোরটির পরিধি ধীরে ধীরে বাড়ানো হবে।

অ্যাপ স্টোর ও প্লে স্টোরে গেম বিক্রির ক্ষেত্রে অন্য কোম্পানির কাছ থেকে আয়ের ৩০ শতাংশ পর্যন্ত ফি নেয় অ্যাপল ও গুগল। প্রতিযোগিতায় এগিয়ে থাকতে নিজেদের গেম স্টোরে কমিশনের পরিমাণ কম রাখতে পারে মাইক্রোসফট।

এর আগেও এক্সবক্স মোবাইল গেমিং স্টোর উন্মোচন নিয়ে আলোচনা করেছিল মাইক্রোসফট। গত ডিসেম্বরে মাইক্রোসফটের গেমিংয়ের প্রধান নির্বাহী ফিল স্টেনসর বলেন, কোম্পানিটি এক্সবক্স মোবাইল স্টোর চালু করার বিষয়ে অংশীদারদের সঙ্গে আলোচনা করছে ও শিগগিরই এটি উন্মোচন করবে।

২০২২ সালে প্রথমবারের মতো নিজস্ব মোবাইল স্টোর চালু ইঙ্গিত দিয়েছিল কোম্পানিটি। মোবাইল গেমিংয়ে নিজের অবস্থান তৈরির জন্য সেসময় অ্যাক্টিভিশন ব্লিজার্ড কোম্পানিকে কিনতে চেয়েছিল মাইক্রোসফট। আবার ২০২২ সালের অক্টোবরের মাইক্রোসফটের এক নথি থেকে জানা যায়, নতুন ‘এক্সবক্স গেমিং প্ল্যাটফর্ম’ তৈরি করার পরিকল্পনা করছিল মাইক্রোসফট। যেখানে অ্যাক্টিভিশন ও কিং ডিজিটাল এন্টারটেইনমেন্টের তৈরি গেমগুলো থাকবে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) ডিজিটাল মার্কেটিং অ্যাক্ট (ডিএমএ) এর ফলে অ্যাপল ও গুগলকে নিজের মোবাইল অ্যাপ স্টোরে বেশ কিছু পরিবর্তন নিয়ে আসতে বাধ্য হয়। এখন ইইউয়ের বাইরে যুক্তরাষ্ট্রেও মাইক্রোসফট ডেভেলপারদের বেশ কিছু সুবিধা দিয়ে প্রতিযোগিতায় এগিয়ে থাকার পরিকল্পনা করছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন