জাগো ফাউন্ডেশনের জাতীয় যুব সম্মেলন ২৬ ফেব্রুয়ারি

62

‘জাতীয় উন্নয়নের জন্য তরুণদের ক্ষমতায়ন’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ‘জাতীয় যুব সম্মেলন ২০২০- এর চতুর্থ আসরের আয়োজন করছে জাগো ফাউন্ডেশন। কক্সবাজারের লং বিচ হোটেলে এই সম্মেলনটি আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে শেষ হবে ২৯ ফেব্রুয়ারি।

চার দিনব্যাপী এ সম্মেলনটিতে ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী সর্বমোট ৬শ’ জন তরুণ অংশগ্রহণ করবেন। একটি নির্দিষ্ট স্ক্রিনিং ও নির্বাচন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এ তরুণদের নির্বাচন করা হয়। নিজেদের কমিউনিটিতে নেতৃত্বদানের অভিজ্ঞতা, টেকসই উন্নয়ন এবং তরুণদের নানা বিষয়সহ বৈশ্বিক বিষয়াবলী নিয়ে আগ্রহ রয়েছে এমন তরুণরাই এ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছে।  পাশাপাশি, অংশগ্রহণকারী তরুণদের দেশের নির্বাচনী প্রক্রিয়াতে অংশগ্রহণেরও আগ্রহ ও পরিকল্পনা রয়েছে।

নজের কমিউনিটিতে নেতৃত্বের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন, আন্তর্জাতিক ঘটনাবলী, টেকসই উন্নয়ন এবং তরুণদের বিষয়ে আগ্রহ আছে এবং যাদের নিজেদের কমিউনিটির প্রতিনিধিত্ব করার এবং উন্নয়নে জোরালো ভূমিকা রাখার পরিকল্পনা আছে তারাই মূলত এই সম্মেলনে অংশ নেয়ার সুযোগ পেয়েছেন। 

এই সম্মেলনে দেশের মেধাবী তরুণদের টেকসই উন্নয়ন ও সামাজিক উদ্যোক্তা খাতে সম্পৃক্ত করা হবে, যেখানে তারা নেতৃস্থানীয় পেশাদার, নীতিনির্ধারক ও বিভিন্ন খাতের প্র্যাকটিশনারদের সাথে মতবিনিময়ের সুযোগ পাবে। আলোচনা, দক্ষতা বৃদ্ধি বিষয়ক কর্মশালা, বিভিন্ন নেটওয়ার্কিং সেশন এবং ধারণা বিষয়ক চ্যালেঞ্জের মাধ্যমে সম্মেলনে সারা বাংলাদেশ থেকে আগত তরুণদের প্রাসঙ্গিক জ্ঞান ও প্রয়োজনীয় তথ্যাদি দিয়ে দক্ষ করে তোলার সুযোগ করে দেওয়া হবে। এটি বছরব্যাপী তরুণদের পরিবর্তনের জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়া এবং প্রকল্প তৈরির সক্ষমতা বৃদ্ধিতে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে। 

এ নিয়ে জাগো ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক করভি রাকশান্দ বলেন, ‘বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ৪০ শতাংশই তরুণ। তরুণরা দেশের উন্নয়নে বিশাল ভূমিকা রাখতে পারে। তরুণদের সঠিকভাবে বিকশিত করার পাশাপাশি দায়িত্বশীল নাগরিকে পরিণত করার দায়িত্ব আমাদেরই। এই অন্তর্ভুক্তিমূলক সম্মেলনটিতে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের মাধ্যমে কমিউনিটির উন্নয়নের জন্য তরুণদের করণীয় বিষয়গুলো সম্পর্কে আলোকপাত করা হবে। সম্মেলনটি অংশগ্রহণকারীদের ব্যক্তিগত বিকাশকে আরও জোরদার করবে। এবং তাদেরকে নিজ নিজ  এলাকায় সক্রিয় নাগরিক হতে অনুপ্রেরণা এবং প্রেরণা জোগাবে।’

সম্মেলনে ৩০টিরও বেশি সেশন অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে রাজনীতিতে তরুণদের উদ্বুদ্ধকরণ, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে প্রাতিষ্ঠানিক অংশীদারত্ব, টেকসই শহর নির্মাণের জন্য সড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ, বাংলাদেশের শিল্পখাত, নেতৃত্বের গুণাবলী অর্জন, ব্যবসা খাতে প্রযুক্তি, সুশাসন, নাগরিকের দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে প্রয়োজনীয় শিক্ষা এবং মানবাধিকারসহ আরও অনেক কিছু।  

এই সম্মেলনে বিভিন্ন ক্ষেত্রের ৭৫ জনেরও বেশি বক্তা এবং একাধিক বিষয়ে দক্ষ ব্যক্তির সমন্বয়ে প্যানেল থাকবে। এদের মধ্যে রয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, কন্টেন্ট নির্মাতা ও ভিডিও ব্লগার ডিয়ার অ্যালেন, বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের ডেপুটি হাই কমিশনার কানবার হোসেন বর, বিজিএমইএ’র প্রেসিডেন্ট রুবানা হক, ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ, আইপিডিসি ফাইন্যান্সের ম্যানেজিং ডিরেক্টর মোমিনুল ইসলাম, গ্রিন ডেল্টার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারজানা চৌধুরী, নভোএয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মফিজুর রহমান, অ্যাপেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ নাসিম মনজুর, আইডিএলসি ভেঞ্চার ক্যাপিটালের পার্টনার সামাদ মিরালী, ইউএন ওমেনের কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ শোকো ইশিকাওয়া, ওয়াটারঅ্যাইডের কান্ট্রি ডিরেক্টর হাসিন জাহান এবং ইউএনডিপি বাংলাদেশের হেড অব কমিউনিকেশনস মো. আব্দুল কাইয়ুমসহ আরও অনেকে।  

সমাজের বৃহৎ সমস্যাগুলো মোকাবিলা করার পাশাপাশি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের মাধ্যমে সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ বিনির্মাণে ‘জাতীয় যুব সম্মেলন’ আয়োজন করে থাকে জাগো ফাউন্ডেশন।

টেকইকম ডেক্স

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন